English Version

ছাতকে পুলিশ দেখে ভয়ে নদীতে ঝাঁপ দিতে গিয়ে শ্রমিকের মৃত্যু

ছাতক প্রতিনিধি::ছাতকে পুলিশ দেখে ভয়ে সুরমা নদীতে ঝাঁপ দিতে গিয়ে মো.আলী (৩০) নামে এক নৌকা শ্রমিকের মৃত্যু মর্মান্তিক হয়েছে। শুক্রবার রাত ৮টায় সুরমা নদীর মোগলপাড়ার এলাকা থেকে স্থানীয় জেলেদের মাধ্যমে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত ওই নৌকা শ্রমিক পৌরসভা এলাকা ৮নং ওয়ার্ডের মোগলপাড়ার বাসিন্দা মৃত সাহেদ আলীর ছেলে। তবে নিহত মো.আলী ছাতক সদর ইউনিয়নের কাজিহাটা গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে থানার কয়েকজন পুলিশ একটি মামলা তদন্তের বিষয়ে মোগলপাড়া এলাকায় যায়। এ সময় নদীর তীরে বসে নৌকা শ্রমিক মো.আলীসহ বেশ কয়েকজন জুয়া খেলায় ব্যস্থ ছিল। পুলিশের অবস্থান টের পেয়ে আটকের ভয়ে জুয়া খেলার আসর থেকে মো.আলীসহ ৬জন নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়ে ৫জন সাতার কেটে তীরে উঠে। স্থানীয় লোকজন অনেক খোঁজাখুজির পর রাত ৮টায় জেলেদের সহযোগিতায় পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নওশাদ মিয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মো.আলীসহ ৬জন সদীর পানি থেকে সাতার কেটে উঠতে পারলেও সে উঠতে পারেনি। পুলিশ নদী থেকে তার লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে গেছে।

থানার ওসি মোস্তফা কামাল বলেন, নিহত নৌকা শ্রমিকের লাশ শনিবার সকালে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

 

 

সর্বশেষ সংবাদ