English Version

কমলগঞ্জে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

কমলগঞ্জ সংবাদদাতা::মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের আলীনগর ইউনিয়নের যোগিবিল গ্রামে এক গৃহবধূকে নির্যাতন করে হত্যার পর মুখে বিষ ঢলে আত্মহত্যা বলে চালানোর অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন গৃহবধূর খালা।

শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) নিহত গৃহবধূ লিপি বেগমের খালা রুবিনা আক্তার কমলগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

এর আগে গত ৪ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ৯টায় যোগিবিল গ্রামের নাছিল মিয়ার স্ত্রী লিপি বেগম (২৪) বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন বলে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত করা হয়েছিল।

নিহত গৃহবধূ লিপি বেগমের খালা রুবিনা আক্তারের অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বিয়ের পর থেকে তার স্বামী নাছির মিয়া ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন নানাভাবে তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করছিল। এমনি নির্যাতনে গত ৪ ফেব্রুয়ারি রাতে লিপি বেগম মারা যান। পরে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে লিপির মুখে বিষ ঢেলে সে আত্মহত্যা করেছে বলে অপপ্রচার করা হয়। এমনকি লাশটি উদ্ধারের পর মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে তাদেরকে (গৃহবধূর স্বজনদের) না জানিয়ে দ্রুত লাশটি কবরস্থ করা হয়। এরপর তাদেরকে সংবাদ দেওয়া হয় বলে লিখিতভাবে জানান রুবিনা বেগম। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তক্রমে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানান রুবিনা বেগম ।

মামলার প্রধান অভিযুক্ত নিহত গৃহবধূর স্বামী নাসির মিয়া বলেন, পারিবারিক কোন কলহ ছিল না। আমার স্ত্রী লিপি কি কারণে বিষ পান করে মারা গেল সেটা বুঝতে পারছেন না।

এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ থানার  ওসি মো. আরিফুর রহমান বলেন, ঘটনাটি গত ৪ ফেব্রুয়ারি ঘটার পর পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত করিয়েছে। সম্প্রতি নিহত গৃহবধূর খালা লিখিতভাবে অভিযোগ করেছেন নির্যাতনে লিপির মৃত্যুর পর তার মুখে বিষ ঢেলে দেওয়া হয়। যেহেতু এখন লিখিত অভিযোগ হয়েছে সেহেতু সুষ্ঠু তদন্তক্রমে বিহিত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

সর্বশেষ সংবাদ