English Version

আন্তর্জাতিক সেনা ইরাক ছাড়লে আইএসের উত্থান হবে :জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::সন্ত্রাসবিরোধী আন্তর্জাতিক বাহিনীর সেনারা ইরাক ছাড়লে সেখানে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের উত্থান হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাইকো মাস। সোমবার (১৩ জানুয়ারি) আম্মানে জর্ডানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই হুঁশিয়ারি দেন।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস দমনে ইরাক সরকারের আমন্ত্রণে দেশটিতে মার্কিন নেতৃত্বাধীন আন্তর্জাতিক বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছিল। এরই অংশ হিসেবে সন্ত্রাসবাদবিরোধী লড়াইয়ের জন্য মধ্যপ্রাচ্যে ৪১৫ সেনা মোতায়েন করে জার্মান সরকার। এদের মধ্যে ইরাকের রাজধানী বাগদাদ ও উত্তরাঞ্চলীয় শহর তাজিতে নিয়োজিত রয়েছে দেশটির ১৩০ সেনা।

সোমবার জর্ডানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আয়মান সাফাদির সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ‘ইরাক থেকে সেনা প্রত্যাহার করা হলে ওই অঞ্চল সন্ত্রাস ও সহিংসতার উর্বর ভূমিতে পরিণত হবে। যা মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপকে আক্রান্ত করবে।’

মার্কিন হামলায় ইরানের শীর্ষ জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যার পর থেকে তেহরান ও ওয়াশিংটনের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এমন সময় হাইকো মাস বলেছেন, ‘ইরান যদি উত্তেজনা কমাতে চায়, তাহলে তাদের অবশ্য ইরাকসহ ওই অঞ্চলে আগ্রাসন বন্ধ করতে হবে।’

উল্লেখ্য, গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে ড্রোন হামলা চালিয়ে ইরানের অভিজাত কুদস বাহিনীর প্রধান কাসেম সোলাইমানিসহ বেশ কয়েকজনকে হত্যা করা হয়। এর দুইদিনের মাথায় ৫ জানুয়ারি ইরাক থেকে মার্কিন সেনাদের প্রত্যাহার চেয়ে বিল পাস করে দেশটির পার্লামেন্ট। ইরাকি আইনপ্রণেতারা মনে করেন, যুক্তরাষ্ট্র যেভাবে বাগদাদে ঢুকে তাদের মিত্র ইরানের কমান্ডার কাসেম সোলাইমানিকে হত্যা করেছে; তা ইরাকের সার্বভৌমত্বের লঙ্ঘন।

 

 

সর্বশেষ সংবাদ