English Version

স্পেনে কাস্মীর ইস্যুতে ভারতীয় দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচি পালিত

স্পেন প্রতিনিধি : কাস্মীরে মুসলমানদের উপর নার্যাতনের প্রতিবাদে স্পেনের মাদ্রিদে গত ১৯ শে আগষ্ট দুপুর এক ঘটিকা হতে ভারীয় দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচি পালিত হয়।

কমিউনিদাদ হুমানস দে মাদ্রিদ স্পানিয়া এর পক্ষ থেকে এই কর্মসূচি পালন কালে বাংলাদেশ,পাকিস্তান সহ মাদ্রিদের মুসলিম কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ এবং সাধারণ মানুষের উপস্হিতি ছিলো আশাব্যঞ্জক।

ভাশিয়েন্তে বাংলার সার্বিক সহযোগিতায় এই কর্মসূচি পালনকালে প্রথমে মাদ্রিদের পিও ডসে মেট্রো ষ্টেশনের কিছু দূর থেকে মিছিল শুরু হয়ে ভারতীয় দূতাবাসের সামনে গিয়ে বিক্ষোভকারীরা অবস্হান নেন।

বিক্ষোভকারীদের মিছিলের ধ্বনিতে ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠে পুরো এলাকা। মিছিলের মাধ্যমে বর্তমান মোদি সরকারের প্রতি ক্ষোভ, এই সরকারের পতন এবং স্বাধকনতাকামী কাস্মিরবাসীর মুক্তির দাবী উচ্চারিত হয়।

মিছিল পরবর্তী বিক্ষোভ সমাবেশে বাংলাদেশ,পাকিস্তান সহ মাদ্রিদ মুসলিম কমিউনিটির নেতৃবৃন্দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন…পালিয়াহে বাংলার সভাপতি ফজলে এলাহী সাধারণ সম্পাদক রমিজ উদ্দিন ,তরুণ সংগঠক মুজিব,কাশ্মীরি কমিউনিটি নেতা রাজা মুক্তার ,মালিক মুহাম্মদ ,আসগার সায়েদ প্রমুখ|এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের স্পেনের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান সুন্দর ,মাওলানা খলিলুর রহমান ,সালাম পত্রিকার সম্পাদক নুরুল আলম জাকিরুল ইসলাম জাকি, বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বিশ্ব মুসলিম নেতৃবৃন্দকে এক হওয়ার আহ্বান জানান।

প্রসঙ্গত গত ৫ ই আগষ্ট ভারত সরকার সংসদে জন্মু ও কাশ্মীরকে বিশেষ অঞ্চল হিসেবে সুবিধা দেওয়া সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করায় এই দুটি অঞ্চল সাংবিধানিক ভাবে দিখন্ডিত করার সিদ্ধান্ত নেয়। যার ফলে এই দুটি অঞ্চলসহ লাদাখ ও ভারতীয় সংবিধানের আওতায় এসে এক দেশ এক সংবিধানের অন্তর্ভুক্তে চলে আসে। সেই পরিবর্তনকে কেন্দ্র করে সেখানে অপিরিস্হিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি হওয়ায় ভারত সরকার সেখানে কারফিউ জারি করে রাখে এবং সেখানকার বড় বড় স্বাধীনতাকামী নেতাদের গৃহবন্দী করে।

ভারত সরকারের এরকম ন্যাক্কারজনক কর্মকান্ডের প্রতিবাদে বিশ্বের প্রতিটি প্রান্তে মুসলমানরা বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে আসছেন এবং এরই ধারাবাহিকতায় মাদ্রিদে ভারতীয় দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচি পালন করা হয়।

 

সর্বশেষ সংবাদ