English Version

কানাইঘাটে মশক নিধন ও পরিচ্ছিন্নতা সপ্তাহ পালিত

কানাইঘাট প্রতিনিধি:: পরিবেশ রাখি পরিষ্কার, বদ্ধ করি মশার বিস্তার – এই স্লোগান নিয়ে কানাইঘাটে শুরু হয়েছে মশক নিধন ও পরিচ্ছিন্নতা সপ্তাহ। মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় দেশব্যাপী এই কর্মসূচীর অংশ হিসাবে সিলেটের কানাইঘাট উপজেলা প্রশাসনের উদ্যেগে উপজেলা পরিষদের হল রুমে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানিয়া সুলতানার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলার পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র নিজাম উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দল্লাহ শাকির, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খাদিজা বেগম, চেয়ারম্যানদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেমস লিও ফারগুশন নানকা, মাসুদ আহমদ, ডাঃ ফয়াজ উদ্দিন, আলী হোসেন কাজল, মাওঃ আবুল হোসেন, আব্বাস উদ্দিন, কানাইঘাট থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আনোয়ার জাহিদ, মৎস্য কর্মকর্তা ফারজানা আক্তার, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা র্শীষেন্দু পুরকায়স্ত, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তারিকুল ইসলাম, সমবায় কর্মকর্তা জামাল উদ্দিন, মাষ্টার মামুন আহমদ, মোঃ ইয়াহইয়া প্রমূখ এ ছাড়াও উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, পল্লি বিদ্যুতের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সহ প্রশাসনের বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় দেশব্যাপী ডেঙ্গু জ¦রের নানা চিত্র তুলে ধরে ব্যাপক আলোচনার মাধ্যমে জনসচেতনতা মুলক গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর পুর্বেই ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের প্রস্তুতি মুলক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

পরে পৃথক এক মতবিনিময় সভায় ছেলে ধরা গুজব প্রতিরোধে নেতৃবৃন্দ নানা আলোচনা করেন। এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানিয়া সুলতানা বলেন পদ্মা সেতুর জন্য মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে, এটি সম্পর্ণ একটি গুজব কাহিনী, এর কোন সত্যতা নেই। কিন্তু মানুষ এই গুজবে কান দিয়ে সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনীতে বেশ কয়েক জনকে হত্যা করেছে। এ বিষয় জনসচেতনতার প্রয়োজন। এই গুজব প্রতিরোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সবাইকে গণসচেতনতা গড়ে তুলার আহবান জানান।

 

সর্বশেষ সংবাদ