English Version

পদোন্নতিতে সাংবাদিক আবদুল আহাদকে সময়ের যাত্রী পরিবারের অভিনন্দন

নিজস্ব প্রতিবেদক:: সময় টেলিভিশনের রিপোর্টার আবদুল আহাদ সিনিয়র রিপোর্টার হিসেবে পদোন্নতি পেয়েছেন। ২৪ ঘন্টা সংবাদ ভিত্তিক চ্যানেলটির সিলেট ব্যুরো অফিসে তিনি কর্মরত।

সময় সংবাদের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও আহমেদ জোবায়ের স্বাক্ষরিত পত্রে আজ তাকে পদোন্নতি প্রদান করা হয়।

২০১১ সালে রিপোর্টার হিসেবে সময় সংবাদে যোগ দেন আবদুল আহাদ। চাকুরীজীবনের আট বছরের মাথায় পেলেন এই পদোন্নতি।

পদোন্নতি পেয়ে নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে সময় কর্তৃপক্ষকে কৃতজ্ঞতা জানান আহাদ।
স্ট্যাটাসে তিনি লেখেন-
“সব আগের মতো শুধু পদের আগে যোগ হয়েছে Sr. তাতেই দায়িত্ব বাড়ে গেল কয়েকগুণ। এটা আমার চাকুরীজীবনের সেরা অর্জন। আমার অভিভাবক জো ভাই, তুষার ভাই, নিয়াজ ভাই, দানিশ ভাই, নিউজ রুম, ন্যাশনাল ডেস্ক সবার কাছে কৃতজ্ঞ। সব সময়ের সঙ্গী আমার টিভি সাংবাদিকতার শিক্ষক ইকু ভাইয়ের কাছে ঋণী। ঋণী দিগেন দার কাছে। নৌসাদ চৌধুরী, শামীম ও আলমকে ভালোবাসা।
❤ভালোবাসি সময়❤

তরুণ ও মেধাবী সাংবাদিক আবদুল আহাদ সিলেটের সাংবাদিকতা জগতের এক পরিচিত নাম। সিলেটের বহুল প্রচারিত পত্রিকা দৈনিক সিলেটের ডাক’র এমসি কলেজ প্রতিনিধি হিসেবে সাংবাদিকতা শুরু করেন। সেখানে পদোন্নতি পেয়ে ২০০৯ সাল থেকে ২০১১ সালের প্রথম কয়েক মাস পর্যন্ত সেই পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

আবদুল আহাদ সাংবাদিকতা ছাড়াও সরকারি গণমাধ্যম বাংলাদেশ বেতার সিলেট কেন্দ্রের তালিকাভুক্ত অনুষ্ঠান ঘোষক ও উপস্থাপক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ৫ বছর। বেতারে নাট্যশিল্পীর অডিশন পাস করে বেতার নাটকেও অভিনয় করেছেন। বেতারে সংবাদ অনুবাদক হিসেবেও কাজ করেন তিনি।

সাংবাদিক আবদুল আহাদের বাড়ি মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলায়।

সিলেটের স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমসি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক, অনার্স ও মাস্টার্স সম্পন্ন করে এলএলবি করেছেন সিলেট ‘ল’ কলেজ থেকে। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি থেকে দু’বছরের আবৃত্তি কোর্স করেছেন সাফল্যের সঙ্গে।

সংগঠক হিসেবেও খ্যাতি কুড়িয়েছেন। ২০১৬-২০১৭ সালের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে সিলেটের সাংবাদিকতার শত বছরের স্মারক প্রতিষ্ঠান সিলেট প্রেসক্লাবের ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক হিসেবে নির্বাচন হন আবদুল আহাদ। ২০১৮ সালে সিলেট প্রেসক্লাবের সেরা সাংবাদিকতা পুরস্কার পান তিনি।

 

সর্বশেষ সংবাদ